FOLLOWING CONTENTS ARE VERY SERIOUS THOUGH APPEARED CASUAL IN APPARENT READING. KINDLY TRY TO READ BETWEEN THE LINES //নিচের বিষয়বস্তু সাদামাটা মনে হলেও অতি গুরুত্বপূর্ণ ৷  সময় নিয়ে যত্ন করে পড়ে এর গুরুত্ব বুঝতে প্রয়াস করুন ৷ 

  1. Carcinogens are chemical substances/energy which have the capacity to bring about undesirable changes in DNAs of cells. Normal cells are transformed into malignant cells due to carcinogenic effect of substances/energies.//কারসিনোজেন এক ধরণের রাসায়নিক  পদার্থ বা  শক্তি যা  কোষের ডি-এন-এর  মধ্যে অবাঞ্ছিত  পরিবর্তন অানতে পারে ৷  কারসিনোজেনের প্রভাবে সাধারণ কোষ  মধ্যে মারাত্মক ধরণের  কোষে পরিবর্তিত হয় ৷  
  2. There are a lot of carcinogens in the environment around us. We take those with our foods, drinks and inspiration knowingly or unknowingly. The list of carcinogens is not complete. Many of them have been identified and a lot others still remain unidentified.//আমাদের চারপাশের পরিবেশে প্রচুর কারসিনোজেন আছে ৷  আমরা জেনে বা না জেনে খাদ্যের সঙ্গে, পানীয়ের সঙ্গে ও প্রশ্বাসের সঙ্গে সে-সব নিয়ত গ্রহণ করছি ৷
  3. If we want to prevent cancer, we should be aware of the identified carcinogens and must avoid those. The list of common Carcinogens follows://যদি আমরা ক্যানসার প্রতিরোধ চাই, তবে  চিহ্নিত কারসিনোজেন  সম্পর্কে  আমাদের  সচেতন হতে হবে এবং সর্বদা তাদের এড়িয়ে চলতে হবে ৷ সাধারণ  কারসিনোজেনের তালিকা নিচে দেওয়া হল:
    1. All artificial color(these are randomly used in foods and drinks) are reported to be carcinogenic in nature.
        //খাদ্যে ও পানীয়তে ব্যবহৃত সমস্ত কৃত্রিম রং
    2. Pesticides(these also permeates to fruits and vegetables from soil) adhered on the surface of fruits and vegetables are also very noxious agents. Positively wash vegetables / fruits vigorously for several minutes before use. Always wash before cutting, it is useless to wash after cutting !!!.//ফল, সব্জিতে লেগে থাকা কীটনাশক৷ ৷  ব্যবহারের অাগে  ফল/সব্জি  কিছুক্ষণ জলে  ডুবিয়ে রাখুন (অন্তত: ৫ মি:)৷ তারপর প্রবহমান জলে ভাল করে ধুয়ে নিন ৷ তারপর কাটুন ৷ কখনও ধোওয়ার আগে কাটবেন না ৷
    3.  Gutka,Tiranga like chewing masala (the practice of taking these by young men leads to high percentage of oral cancer in even their twenties) গুটকা, তিরঙ্গা ইত্যাদি  সুগন্ধী মশলা , সুপারি –এর মারাত্মক প্রভাবে বর্তমানে  বিশ-পঁচিশ  যুবকদের  মুখের ক্যানসার  আক্রান্ত  হচ্ছে ৷
    4. Smegma (a grey / ash colored substance ) accumulates around head of penis (just after the circular rim) of men and inner folds of vulva of women may cause Genital Cancer (this should be cleaned regularly during bath). For details please consult article “Common Cancers of Males and Females & their prevention”. //পুরুষদের লিঙ্গ মুন্ডের ঠিক পিছনে  ও নারীদের বহি:জননাঙ্গের অন্ত:ভাঁজে স্মেগমা নামে এক ধরণের ছাই রঙা ময়লা জমে  যা লিঙ্গ ক্যানসার সৃষ্টি করে ৷ প্রত্যহ স্নানের সময়  এটা পরিষ্কার করে নেওয়া জরুরী ৷ 
    5. PVC, DDT, Saccharine (please check Sugar Free pills, do they contain sacch.?) are well-known for their carcinogenic effect. Plastic contains ‘Bis-Phenol – A’ which is proved to be carcinogenic; take care to avoid plastic as container of food or drinks or medicines.//পি-ভি-সি, ডি-ডি-টি, স্যাকারিন -এরা প্রত্যেকেই কারসিনোজেন ৷  প্লাস্টিকে  থাকে ‘বিস-ফেনল এ ‘ যা মার্কড  কারসিনোজেন৷ ৷ খাদ্য, পানীয়, ওষুধ ইত্যাদি প্লাসটিক ধারকে রাখা উচিত নয় ৷
    6. Red meat (proven cause of rectal cancer)  //রেড মিট রেক্টাল ক্যানসারের কারণ  
    7. Bidi, Cigarette, hard drinks use to cause cancer of lung / liver !!! Most of branded tooth-pastes contains ‘Triclosan’ which is a proven carcinogen — take absolute care to avoid such tooth pastes, hand-washes and soaps for wash of utensils . Two pinches of salt and a drop of mustard/olive oil and a tooth brush may jolly-well be used to clean the teeth regularly — this has proved to be a very secured process of teeth-cleaning.//বিড়ি, সিগারেট, অ্যালকোহল  ফুসফুসের , গলার, লিভারের ক্যানসার সৃ্‌ষ্টি করে ৷  ‘ট্রাইক্লোসান ‘ একটি মার্কড কারসিনোজেন – টুথ পেস্ট, হ্যান্ড-ওয়াশ, বাসন ধোওয়ার সাবানে  প্রচুর ব্যবহার  হয় ৷  এ জাতীয় পদার্থগুলি সম্পূর্ণ  পরিতাজ্য  ৷ দু-চিমটি নুন, দু-এক ফোঁটা সরষের তেল বা অলিভ তেল আর  টুথ ব্রাশ দিয়ে দাঁত মাজলে  সারা জীবনে কোনও ক্ষতির সম্ভাবনা নেই ৷
    8.  Avoid canned or packed foods, drinks, these contain chemical preservatives inimical to health//কৌটোয় বা প্যাকেটে রাখা  খাদ্য বা পানীয় এড়িয়ে চলুন  ৷  এতে  ক্ষতিকারক রাসায়নিক থাকে ৷ 
    9. Asbestos powder used to polish rice, dal and other grains. Asbestos powder/fibres are noted for their carcinogenic effect. A point to note : Asbestos used for roofing purpose does not appear to be a menacing agent in this regard since it does not produce any fibres or powder in general unless it is vigorously rubbed against rough surfaces or sawed extensively. It is the fine fibres or powdered form of asbestos which is the culprit ! not the asbestos roof.//চাল-ডাল-অন্যান্য শস্যদানা এসবেসটস পাউডার দিয়ে পালিশ করা হয় ৷ এসবেসটস মার্কড কারসিনোজেন ৷  লক্ষ রাখুন, ঘরের ছাদে যে এসবেসটস ব্যবহার করা হয় তা কিন্তু ক্ষতিকারক নয় যেহেতু এ থেকে কোন পাউডার বা ফাইবার বের হয় না ৷
    10.  Recent research notes that when we make bread-toast or fry potato to the point of making the items brown, a chemical named Acrylamide is formed which is definitely carcinogenic ! Researchers suggests to stop frying foods when they turn golden yellow to avoid formation of acrylamide.//আধুনিক  গবেষণায় জানা গেছে, পাউরুটি টোস্ট করার সময় বা আলু ইত্যাদি ভাজার সময় অধিক তাপের ফলে যে বাদামী রঙের  পদার্থ সৃ্‌ষ্টি হয় তার রাসায়নিক নাম এক্রিলামাইড এবং এটি কারসিনোজেন ৷  গবেষকরা জানিয়েছেন, ভাজার সময় খাদ্যবস্তুর রং যখন সোনালী-হলুদ হবে তখনই ভাজা বন্ধ করতে  ৷