1. This is a debatable issue. However, with time, gradually scientists & men from medical profession with radical thinking even, tend to express a silent nod towards this cause of cancer.//এটা একটা বিতর্কিত বিষয় ৷ তবে, সময়ের সাথে সাথে  বিজ্ঞানীরা ও চিকিৎসা জগতের মননশীল অনেকেই এখন এ বিষয়ে নি:শব্দ সম্মতি দিচ্ছেন ৷
  2. Incidentally some individuals face a lot of uncalled for pain, sorrow, indignation and injustice during their life-time. Many think-tanks of Medicine think that the state of mental-health of those depends a lot on how they reacted with those uncalled for sufferings. If a person receives/absorbs all the sufferings silently and does not do anything to dilute the accumulated pang in the inner-self, there develops a stress within the individual which eventually may lead to create malignant disease in the nature of cancer even.// ঘটনাচক্রে কিছু মানুষ সারা জীবন ধরে অনেক  অন্যায্য যন্ত্রণা, দু:খ, অশ্রদ্ধা ও অন্যায়ের মুখোমুখি হন ৷  চিকিৎসা জগতের  অনেক চিন্তাবিদ মনে করেন , ঐ মানুষদের  মানসিক স্বাস্থ্য বহুলাংশে নির্ভর করে কীভাবে তাঁরা ঐ  সমস্ত অন্যায্য দুঃখ-যন্ত্রণা সামলেছেন তার ওপর ৷ যদি  কেউ  সমস্ত দুঃখ-যন্ত্রণা সারা জীবন  মনে মনে  শুধু সহ্য করে থাকেন, সেগুলো লাঘবের কোন ব্যবস্থা  না করে থাকেন, তবে  ক্রমাগত মানসিক চাপে  তাঁর মনন -তন্ত্রে  যে পরিবর্তন আসে তাও ক্যানসারের মতো মারাত্মক অসুখের জন্ম দিতে পারে ৷
  3. Many an oncologist, in fact, have been successful to bring back a lot of aged cancer patients towards positive direction of cure by simply compelling them to divulge their sufferings before him. Most of the patients burst into tears while narrating injustice, pain & suffering inflicted on them during many years before the physicians. And simply after these events, patients in most cases response to treatment much positively. Accordingly, psychical-cause appears to be the important missing link to explain origin of cancer in apparently otherwise absolutely clueless cases as to reason of cancer.//অনেক ক্যানসারবিদ  বাস্তবে বহু বয়স্ক ক্যানসার রোগির  সারা জীবনের জমে থাকা দুঃখ-কষ্টের ঘটনা তাঁদের মুখ দিয়ে  শুধুমাত্র  বলিয়ে তাঁদেরকে অনেকটা সুস্থতার দিকে নিয়ে যেতে পেরেছেন ৷ তাই  মনস্তাত্বিক কারণকে মনে করা হচ্ছে সেই সমস্ত ক্যানসারের হৃত -যোজক   বা মিসিং লিংক যেখানে অসুখটার আপাত কোনও কারণ খুঁজে পাওয়া যায় না ৷
  4. To know how to tackle this issue, consult article ‘How to dilutePsychicCause ?’ .//ব্যাপারটা কীভাবে সামলাবেন জানার জন্যে ‘কীভাবে মনস্তেত্বিক কারণ লাঘব করনেন ?’ লেখা পড়ুন ৷